Menu

প্রবাস বাংলা ভয়েস ডেস্ক ::‌ মাদক মামলায় ব্যক্তিগত হাজিরা মওকুফ চেয়ে আবেদন করেছেন ঢাকাই ছবির চিত্রনায়িকা পরীমনি।বৃহস্পতিবার সকাল ১০টা ১৪ মিনিটে ঢাকার বিশেষ জজ আদালত ১০-এর বিচারক নজরুল ইসলামের আদালতে তিনি হাজিরা দিয়ে এ আবেদন করেন।পরীমনি অন্তঃসত্ত্বা বলে তার পক্ষে এ আবেদন করেন ব্যক্তিগত আইনজীবী নীলাঞ্জনা রিফাত সুরভী।আদালত আবেদনটি নথিভুক্ত করে এ বিষয় শুনানির জন্য ২ জুন ধার্য করেন। অন্যদিকে মামলার সাক্ষ্যগ্রহণের জন্যও একই দিন ধার্য করেন আদালত।

আজ পরীমনিসহ তিনজনের বিরুদ্ধে সাক্ষ্যগ্রহণের জন্য দিন ধার্য থাকলেও কোনো সাক্ষীই আদালতে উপস্থিত হননি। তবে হাজির হন পরীমনি। সঙ্গে আসেন তার স্বামী শরিফুল রাজ।এ সাক্ষ্যগ্রহণের জন্য দিন ধার্য ছিল গত ২৯ মার্চ। সেদিন অপর দুই আসামি আদালতে উপস্থিত থাকলেও, সেদিন অসুস্থ থাকায় আদালতে উপস্থিত হতে পারেননি পরীমনি। তার পক্ষে আইনজীবী নীলাঞ্জনা রিফাত সুরভী সময়ের আবেদন করেন।

সেই আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে সাক্ষ্যগ্রহণের ১২ মে দিন ধার্য করেন ঢাকার বিশেষ জজ আদালত ১০-এর বিচারক নজরুল ইসলাম।এর আগে ১ মার্চ চিত্রনায়িকা পরীমনির বিরুদ্ধে হওয়া মাদক মামলার কার্যক্রম স্থগিত করেন হাইকোর্ট। এরপর ৮ মার্চ পরীমনির মাদক মামলার কার্যক্রম স্থগিত করে দেওয়া হাইকোর্টের আদেশ ছয় সপ্তাহের জন্য স্থগিত করেছেন চেম্বার জজ আদালত।মাদক মামলা স্থগিতের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রপক্ষের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে চেম্বার বিচারপতি ওবায়দুল হাসান এ আদেশ দেন। গত ৫ জানুয়ারি এ মামলা পরীমনিসহ তিনজনের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করেন আদালত।

গত বছরের ৪ আগস্ট অভিযান চালিয়ে পরীমনিকে তার বনানীর বাসা থেকে আটক করে র্যাব। অভিযানে নতুন মাদক এলএসডি, মদ ও আইস উদ্ধার করা হয়। তার ড্রয়িংরুমের কাভার্ড, শোকেশ, ডাইনিংরুম, বেডরুমের সাইড টেবিল ও টয়লেট থেকে বিপুল পরিমাণ মদের বোতল উদ্ধার করা হয়। তার পর দিন গত ৫ আগস্ট র্যাব বাদী হয়ে রাজধানীর বনানী থানায় পরীমনি ও তার সহযোগী বিপুর বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা করে।

প্রবাস বাংলা ভয়েস/ঢাকা/ ১২ মে  ২০২২ /এমএম