Menu

 

প্রবাস বাংলা ভয়েস ডেস্ক ::‌ বাংলাদেশের চলচ্চিত্র জগতের কিংবদন্তি অভিনেত্রী কবরী সারোয়ার। আজ ১৯ জুলাই ষাট ও সত্তরের দশকের সাড়া জাগানো এই নায়িকার জন্মদিন। তবে এবারের জন্মদিনে আনন্দ নয়, দুঃখকেই মনে পড়বে মিষ্টি মেয়ে কবরীকে ঘিরে। কারণ আজ তাঁর জন্মদিনে ধরাধামে নেই তিনি। করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে গত ১৭ এপ্রিল সবাইকে কাঁদিয়ে পৃথিবীর মায়া ত্যাগ করে না ফেরার দেশে পাড়ি জমান এই তারকা। মৃত্যুর পর এটাই কবরীর প্রথম জন্মদিন।

১৯৫০ সালের ১৯ জুলাই চট্টগ্রামের বোয়ালখালীতে জন্ম নেন অভিনেত্রী কবরী। তার আগের নাম ছিল মিনা পাল। শৈশব ও কৈশোর কেটেছে চট্টগ্রামের ফিরিঙ্গি বাজারে।১৯৬৪ সালে মাত্র ১৩ বছর বয়সে নির্মাতা সুভাষ দত্তের ‘সুতরাং’ চলচ্চিত্রে অভিনয় করে মিনা পাল থেকে কবরী হয়ে উঠেন তিনি। ঢাকাই চলচ্চিত্রের মিষ্টি মেয়ে হিসেবে পরিচিতি পান তিনি।

দীর্ঘ তিন দশকের ক্যারিয়ারে ‘নীল আকাশের নিচে’, ‘ময়নামতি’, ‘সুজন সখী’, ‘স্মৃতিটুকু থাক’, ‘সারেং বউ’, ‘তিতাস একটি নদীর নাম’সহ তিন শতাধিক চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছেন তিনি।অভিনেত্রী কবরী একাত্তরে কলকাতায় গিয়ে বাংলাদেশের পক্ষে জনমত সৃষ্টি করতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছেন; সেখানে বিভিন্ন সভা-সমিতি ও অনুষ্ঠানে বক্তৃতা করেন; সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান আয়োজন করেছেন। পরে দেশে ফিরে চলচ্চিত্রে পুরোপুরি মনোনিবেশ করেছেন।

অভিনয়ের পাশাপাশি ২০০৬ সালে ‘আয়না’নামে একটি চলচ্চিত্রের পরিচালনার মধ্য দিয়ে নির্মাণে অভিষেক ঘটে কবরীর। ২০১৮-১৯ অর্থবছরে সরকারি অনুদানে ‘এই তুমি সেই তুমি’ না‌মে দ্বিতীয় চল‌চ্চিত্র নির্মাণ হাত দিয়েছেন তিনি।২০০৮ সালে নবম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের মনোনয়নে নারায়ণগঞ্জ-৪ আসন থেকে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন কবরী।

প্রবাস বাংলা ভয়েস/ঢাকা/ ২০  জুলাই ২০২১ /এমএম