Menu

প্রবাস বাংলা ভয়েস ডেস্ক :: জীবনে বহুজনের সঙ্গে সম্পর্কে জড়িয়েছেন বলিউড অভিনেত্রী ও সাবেক ‘মিস ইউনিভার্স’ সুস্মিতা সেন। কিন্তু কারও সঙ্গেই বিয়ের পিঁড়িতে বসেননি। ৪৫ বছর বয়সে পৌঁছে এখনও তিনি অবিবাহিত। তবে তার প্রেমের ধারা অব্যাহত আছে এই বয়সেও। বর্তমানে তিনি প্রেম করছেন নিজের থেকে ১৫ বছরের ছোট রহমান শলে নামে এক যুবকের সঙ্গে।

পেশায় মডেল রহমানের সঙ্গে সুস্মিতা সেনের প্রেমের খবরটা বলিউডে নতুন নয়। একাধিক বার তাদের বিয়ের গুঞ্জনও ছড়িয়েছে। তবে বিয়েটা এখনও হয়নি। প্রায়ই নিজেদের ইনস্টাগ্রামের পাতায় ভালোবাসার উষ্ণতা ছড়িয়ে দেন এই অসম জুটি। সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে সুস্মিতা জানালেন, রহমানের সঙ্গে তার প্রেমটাও হয়েছিল সোশ্যাল মিডিয়ার এই প্ল্যাটফর্মে।

অভিনেত্রী জানান, রহমানের সঙ্গে ইনস্টাগ্রামের মাধ্যমে প্রথম কথা হয় তার। নিজের ইনবক্সে রহমানের একটি মেসেজ দেখতে পান সুস্মিতা। সেখান থেকেই শুরু কথোপকথন। তখনও তিনি ভেবে উঠতে পারেননি, এ ভাবেই বয়সে ১৫ বছরের ছোট একটি ছেলের সঙ্গে তার জীবনের রূপকথার সূচনা হতে চলেছে।

সুস্মিতা বলেন, ‘আমি ভাবতে পারিনি রহমান আমার থেকে বয়সে ১৫ বছরের ছোট হয়েও এতটা পরিণত স্বভাবের একজন মানুষ হবে। মানুষের গভীরতা আমার মন ছুঁয়ে যায়। আমি, রহমান এবং আমার দুই মেয়ে একটা টিমের মতো।

সুস্মিতা কখনোই মনে করেন না, পূর্ণতা পেতে তার একজন পুরুষকে প্রয়োজন। বরাবরই ছক ভেঙে নিজের মতো করে বাঁচাতেই বিশ্বাসী এই নায়িকা। তাই বয়সে ছোট প্রেমিককে নিয়ে কোনো কটাক্ষকেও গায়ে মাখেন না অভিনেত্রী।

তাদের সম্পর্কের কথা প্রকাশ্যে আসার পর অনেকেই বলেছিলেন, বলিউডে পা রাখার জন্য সুস্মিতার সঙ্গে সম্পর্ককে এগিয়ে যাওয়ার সিঁড়ি হিসেবে ব্যবহার করতে চান রহমান। কিন্তু এসব কথাকে তোয়াক্কা না করেই একে অপরের ভালোবাসায় বুঁদ হয়ে আছেন তারা। নায়িকার দুই মেয়ে রেনী ও আলিশার সঙ্গেও রহমানের ভালো সম্পর্ক।

এখন আবার প্রশ্ন উঠতে পারে, সুস্মিতা সেন তো বিয়েই করেননি, তাহলে সন্তান আসল কোথা থেকে? উত্তর হচ্ছে, নায়িকা তার দুটি সন্তানকেই দত্তক নিয়েছেন। বড় মেয়ে রেনীকে দত্তক নেন ২০০০ সালে। তখন সুস্মিতার বয়স মাত্র ২৫ বছর। আর ছোট মেয়ে আলিশাকে দত্তক নেন এর ১০ বছর পর, অর্থাৎ ২০১০ সালে। দুই মেয়েই নায়িকার নয়নের মনি।

প্রবাস বাংলা ভয়েস/ঢাকা/ ২০ নভেম্বের ২০২০/এমএম