Menu

প্রবাস বাংলা ভয়েস ডেস্ক ::‌ নিজের বাড়িকে একটু সাজিয়ে-গুছিয়ে রাখতে কে না চায়। তবে ঘরদোর যতই সুন্দর করে সাজানো থাকুক না কেন, দেয়ালে কালচে ছোপ পড়লে গোটা ঘরের সৌন্দর্যই নষ্ট হয়ে যায়। শুধু দেওয়ালই নয়, আসবাব কিংবা দীর্ঘ দিন ফেলে রাখা জামাকাপড়েও ফাঙ্গাস ধরে যেতে পারে। ছত্রাক থেকে শ্বাসকষ্ট কিংবা অ্যালার্জির সমস্যাও দেখা দিতে পারে। এই সমস্যা থেকে মুক্তির উপায় জেনে নিন:

হেয়ার ড্রায়ার দিয়ে চুল শুকাবেন যেভাবেহেয়ার ড্রায়ার দিয়ে চুল শুকাবেন যেভাবে বেসিন বা বাথরুমের দেওয়ালে ডাম্প থাকলে পাইপ সারাই করুন। যেখানে ডাম্প ধরেছে, সেখানে ‘মোল্ড রেজিস্ট কালার’ বা জিপসাম প্লাস্টার ব্যবহার করতে পারেন। তা হলে দেওয়ালটি অনেক দিন ভাল থাকবে।

বাথরুমে ছত্রাক দেখা দিলে ব্লিচিং পাউডার ব্যবহার করতে পারেন। এছাড়া, ব্যবহার করতে পারেন বোরাক্স ও ভিনিগারের মিশ্রণও। দেওয়ালে মিশ্রণ ছড়িয়ে ভাল করে জায়গাটি ঘষতে হবে। বাথরুমে ‘এগজস্ট ফ্যান’ লাগান, যাতে ঠিকমতো বায়ু চলাচল করতে পারে।
বাড়ি

কাঠের আসবাব থাকলে, সেখানেও বাসা বাঁধতে পারে ছত্রাক। পুরনো কাঠের দরজা থাকলে, অনেক সময় ছত্রাকের আক্রমণে সেই দরজা ফুলে ওঠার আশঙ্কা থাকে। এই ধরনের দরজা বদলে ফেলুন। কাঠের আসবাবে ছত্রাকের আক্রমণ আটকাতে আর এক বার বার্নিশ করে নিতে পারেন। বাড়িতে কাঠের মেঝে থাকলে তা সব সময় শুকনো রাখতে হবে।
স্কিন ফাস্টিং কী স্কিন ফাস্টিং কী

মেঝের কোণে অনেক সময়ে ফাঙ্গাস বাসা বাঁধে। বিশেষ করে মেঝেতে কার্পেট থাকলে, এই সমস্যা বেশি হয়। এখন অনেকেই ঘরে গাছ রাখেন। কিছু গাছ অতিরিক্ত আর্দ্রতা বাড়ায়। যাতে ফাঙ্গাস দেখা দিতে পারে।

রান্নাঘরে ছত্রাক ছড়িয়ে পড়লে খাবারে বিষক্রিয়া দেখা দিতে পারে। সবজির খোসার ওপর বহু ক্ষেত্রেই ফাঙ্গাস ধরে যায়। যা অন্যত্রও ছড়িয়ে পড়তে পারে। কাজেই আবর্জনার পাত্রটি নিয়ম করে পরিষ্কার করা দরকার। সাদা ছত্রাকের ওপর নিয়মিত ভিনেগার স্প্রে করুন আর শুকনো কাপড় দিয়ে মুছে নিন।

প্রবাস বাংলা ভয়েস/ঢাকা/ ১৯ জানুয়ারি ২০২৩ /এমএম