Menu

প্রবাস বাংলা ভয়েস ডেস্ক ::‌   সারাদিন কাজের পর ক্লান্তি আসা খুব স্বাভাবিক। কিংবা শারীরিক নানা অসুস্থতার কারণে ক্লান্তি দেখা দিতে পারে। অনেকেই আছেন ক্লান্তি দূর করতে দিনে একাধিকবার চা, কফি অথবা এনার্জি ড্রিংক খেয়ে থাকেন। কিন্তু কিছু পদ্ধতি মেনে চললে ১০ মিনিটেরও কম সময়ের মধ্যে ক্লান্তি দূর করা সম্ভব।

নাগরিক জীবনে ব্রেকফাস্ট না করার প্রবণতা রয়েছে অনেকের মধ্যে। পুষ্টিবিদদের মতে দিনের সব থেকে গুরুত্বপূর্ণ খাবারের সময় ব্রেকফাস্ট। যা শরীরকে এনার্জি দিতে সাহায্য করে। সকালের নাস্তা ঠিকঠাক না করলে শরীর দ্রুত এনার্জি হারিয়ে ফেলে। তবে, ব্রেকফাস্টে জাঙ্ক ফুড খেলে চলবে না। খেতে হবে স্বাস্থ্যকর খাবার।

কিছু পদ্ধতি মেনে চললে ১০ মিনিটেরও কম সময়ের মধ্যে ক্লান্তি দূর করা সম্ভব শরীরে পানির অভাব দেখা দিলেও ক্লান্তি এবং দুর্বলভাব দেখা দেয়। শরীর ডিহাইড্রেট হয়ে পড়ে। তাই সুস্থ থাকতে একজন প্রাপ্ত বয়স্ক মানুষের প্রতিদিন অন্তত ৮ গ্লাস পানি পান করা জরুরি। যখনই ক্লান্তি বোধ করবেন, পানি পান করে দেখতে পারেন। এর ফলে দ্রুত এনার্জি ফিরে আসবে।

ক্লান্তি দূর করতে ফুটবাথের বিকল্প নেই। সারাদিনের কাজের পর যদি পায়ে যন্ত্রণা করে অথবা শরীরে জোর পাচ্ছেন না, এমন অনুভব করেন, তাহলে হালকা গরম পানিতে পা ভিজিয়ে রাখুন কিছুক্ষণ। মিশিয়ে দিতে পারেন অল্প লবণ। মিনিট দশেক ফুটবাথ করলে শরীরের সব ক্লান্তি এক নিমেষে দূর হয়ে শরীর চাঙ্গা হয়ে ওঠে, ঘুমও ভালো হয়।বাদামে প্রচুর পরিমাণে ম্যাগনেসিয়াম রয়েছে। শরীরে চটজলদি এনার্জি ফিরিয়ে আনতে বাদামের জুড়ি মেলা ভার। তাই ক্লান্তি বোধ করলে একমুঠো বাদাম খাওয়ার পরামর্শ দিয়ে থাকেন পুষ্টিবিদরা।

প্রবাস বাংলা ভয়েস/ঢাকা/ ০৩ আগস্ট ২০২২ /এমএম