Menu

প্রবাস বাংলা ভয়েস ডেস্ক ::‌ যান্ত্রিক জীবনে নানা টানাপোড়েন, ক্যারিয়ারের দুশ্চিন্তার মাঝে বিছানায় শুয়েই ঘুমিয়ে পড়েন, এমন ভাগ্যবানদের সংখ্যা দিন দিন কমছে। তাই প্রশান্তির ঘুমের জন্য অনেকেই নানা রকম অভ্যাস তৈরি করে থাকেন। কেউ যোগাভ্যাস বা ধ্যান করেন, কেউ হালকা শরীরচর্চা, কেউ বই পড়েন, আবার কেউবা এক গ্লাস হালকা গরম দুধ খেয়ে নেন। যারা ঘুমের আগে দুধ খাচ্ছেন, তারা চাইলে কিন্তু দুধটাকে বেশি স্বাস্থ্যকর বানিয়ে নিতে পারেন।

ঘুমের আগে দুধের সঙ্গে যদি অন্য কিছু উপাদান মিশিয়ে খেতে পারেন, তা হলে স্বাস্থ্যের জন্য আরও উপকারী হয়ে উঠতে পারে এই পানীয়। যেমন হলুদ। দুধের সঙ্গে হলুদ মিশিয়ে খাওয়ার গুণাগুণ এ দেশের লোক বহু যুগ ধরেই জানেন। শরীরের রোগপ্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ানোর জন্য হলুদ ও দুধের জুড়ি মেলা ভার। তবে পরিচিত আরও একটি উপাদান আছে, যা দুধের সঙ্গে মিশিয়ে খেলে সেই পানীয় হয়ে উঠতে পারে ‘সুপারফুড’।

জাফরান হলো এমন একটি উপকরণ, যার এক চিমটেতেই যেকোনো খাবারের স্বাদ বদলে রাজকীয় হয়ে যায়। তবে জাফরানের দাম বেশি। বিশ্বের সবচেয়ে দামি মসলার মধ্যে জাফরান অন্যতম। যদি রাতে শোয়ার আগে নিয়মিত এক চিমটে জাফরান গরম দুধে দিয়ে খেতে পারেন, তা হলে শরীরের অনেক সমস্যা দূর হয়ে যেতে পারে অচিরেই।জাফরান হলো এমন একটি উপকরণ, যার এক চিমটেতেই যেকোনো খাবারের স্বাদ বদলে রাজকীয় হয়ে যায়

সর্দি-কাশি থেকে রক্ষা পাবেন: যাদের একটুতেই ঠাণ্ডা লাগার সমস্যা আছে। মানে সর্দি-কাশি হয়, তাদের জন্য নিয়মিত জাফরান মেশানো দুধ খাওয়া অত্যন্ত উপকারী। শরীরের নানা রকম প্রদাহ কমাতেও সাহায্য করে এই দুধ।

স্মৃতিশক্তি ভালো থাকে: জাফরানের নির্যাস মস্তিষ্কের বিকাশে সাহায্য করে। ফলে স্মৃতিশক্তি ভালো রাখতেও নিয়মিত জাফরান মেশানো দুধ খাওয়া যেতে পারে।

ঋতুস্রাবের ব্যথা কমায়: ঋতুস্রাবের অসহ্য যন্ত্রণায় ভোগেন যারা, তাদের সাধারণত গরম পানীয় খেতে বলা হয়। তাতে ব্যথায় আরাম পাওয়া যায়। জাফরানে রয়েছে প্রদাহ দূর করার ক্ষমতা। তাই জাফরান মেশানো দুধ খেলে ঋতুস্রাবের সময়ে উপকার পেতে পারেন।

হৃদযন্ত্রের জন্য উপকারী: হৃদযন্ত্রের ভালো যত্ন নিতে পারে জাফরান। ধমনি নরম রেখে রক্ত চলাচল সচল রাখতে সাহায্য করে জাফরান। তাই জাফরান মেশানো দুধ নিয়মিত খেলে হৃদরোগের আশঙ্কাও কমতে পারে।

প্রবাস বাংলা ভয়েস/ঢাকা/ ১১ মে  ২০২২ /এমএম