Menu

প্রবাস বাংলা ভয়েস ডেস্ক ::‌ ওজন কমাতে নিয়মিত শরীরচর্চা ও সঠিক ডায়েট দুটিই খুব প্রয়োজন। কিন্তু অনেকেই মনে করেন ওজন কমানো মানেই বেশি বেশি কায়িক পরিশ্রম এবং কঠোর ডায়েট-এ ধারণাটি একেবারেই ভুল। খুব কঠিন রুটিন তৈরি করলে বেশিদিন মোটিভেশন ধরে রাখা সম্ভব হয় না। এতো এতো পরিশ্রমের ফল আশানুরূপ তো হয়-ই না এবং ওজন কমতেও চায় না। সেজন্য ছিপছিপে মেদহীন শরীর তৈরি করতে সহজে ওজন কমানোর কয়েকটি বিষয় মেনে চলুন।

শরীর বুঝে ব্যায়াম করুন

ইচ্ছে, অধ্যাবসায় থাকলে সহজেই ছিপছিপে মেদহীন চেহারার অধিকারী হওয়া সম্ভব। শরীরচর্চা করার সময় নিজের শরীর বুঝে চলুন। যেখানে বুঝতে পারবেন কোনো অসুবিধা হচ্ছে সেখানে সাথে সাথে থেমে যান। মনে রাখবেন, আপনার কম্পিটিশন শুধুমাত্র গতকালের ‘আপনি’র সঙ্গে।

ওজন কমাতে লক্ষ্য স্থির করুন

নিজের লক্ষ্য স্থির করুন। তবে সেটা অবাস্তব কিছু যেন না হয়। একমাসে ১০ বা ১৫ কেজি কমানোর কথা না ভেবে এমন একটা রুটিন বেছে নিন যেখানে শরীরচর্চা এবং ডায়েট একসাথে আপনার ওজন কমার পাশপাশি শরীর টোনড হবে ও পেশির শক্তিও বাড়বে।

পেটের মাসল শক্তিশালী করুন

যে ধরনের ব্যায়ামই করুন না কেন, পেটের মাসল শক্তিশালী করার উপর জোর দিন। শরীরের মধ্যভাগ শক্তিশালী হলে তা শরীরের সামগ্রিক জোর বাড়াতে সাহায্য করে। ফলে অন্যান্য এক্সারসাইজ করা অনেক সহজ হয়ে যায়। পাশাপাশি ওজন নিয়ে ব্যায়াম করার চেষ্টা করুন। এতে পেশি দ্রুত শক্তিশালী হবে।

নিজেকে অ্যাকটিভ রাখুন

প্রতিদিন নিয়ম করে শরীরচর্চা করার পাশাপাশি অ্যাকটিভ থাকার চেষ্টা করুন, প্রাণবন্ত থাকুন। লিফটের বদলে সিঁড়ি ব্যবহার করুন। ঘরের কাজ করুন। ফোনে কথা বলার সময় বসে না থেকে কিছুক্ষণ হাঁটাচলা করুন।

ব্যায়ামে শারীরিক ভঙ্গি ঠিক রাখুন

শরীরচর্চা করার সময় ঢিলেঢালা ভাবে করলে হবে না। ব্যায়াম করার সময় শারীরিক ভঙ্গি সঠিক ভাবে ধরে রাখার চেষ্টা করবেন। ভুল ব্যায়াম করলে উপকার তো পাবেনই না বরং অন্যান্য সমস্যা দেখা দিতে পারে। শুধু শরীরচর্চার সময়টাতেই নয়, হাঁটা, দাঁড়ানো বা বসার সময়ও শিরদাঁড়া সোজা করে রাখুন। কাজ করার সময় ঝুঁকে না বসে ঘাড় সোজা রাখার চেষ্টা করুন।

প্রতিদিন একই ব্যায়াম নয়

প্রত্যেকদিন একই ধরনের শরীরচর্চা করবেন না। ঘুরিয়েফিরিয়ে সব ধরনের মাসলের ব্যায়াম করার চেষ্টা করুন।

স্বাস্থ্যকর স্ন্যাকস

শরীরচর্চার পাশাপাশি ডায়েটের দিকে নজর দিন। স্বাস্থ্যকর স্ন্যাকস সঙ্গে রাখুন। সারাদিনের খাবার ছোট ছোট মিলে ভাগ করে নিন। অনেকক্ষণ না খেয়ে থাকবেন না। কিছুক্ষণ পর পর অল্প করে পুষ্টিকর সুষম খাবার খেয়ে নিন।

প্রবাস বাংলা ভয়েস/ঢাকা/ ১৯  জুলাই ২০২১ /এমএম