Menu

প্রবাস বাংলা ভয়েস ডেস্ক ::  তৃতীয়বারের মতো সাংবাদিক ইলিয়াস হোসেনকে যুক্তরাষ্ট্রে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। স্থানীয় সময় রবিবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) তাকে আটক করে নিউইয়র্ক পুলিশ। শনিবার (১৭ ফেব্রুয়ারি) রাত থেকেই তার খোঁজ শুরু করে নিউইয়র্ক পুলিশ ডিপার্টমেন্ট। তার ওপর হুলিয়া জারির পর থেকেই তিনি নানা সময় নিজের অবস্থান পরিবর্তন করছিলেন।ডিটেকটিভ ব্রায়ান গ্রানশো জানান, রবিবার নিউইয়র্ক স্থানীয় সময় সকালবেলা তাকে স্টাটেন আইল্যান্ড এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করা হয়।

সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে ব্রায়ান জানান, ইলিয়াস হোসেনকে আজ জ্যামাইকার ১১৩ প্রেসেন্ট হাজতখানাতে নেওয়া হয়েছে। আজ সারা দিন তাকে কারাগারেই থাকতে হবে।সোমবার (১৯ ফেব্রুয়ারি) তাকে কোর্টে জামিনের জন্য তোলা হবে। আশা করা হচ্ছে সেসময় তিনি জামিনে বের হয়ে আসবেন।এর আগে শনিবার (১৭ ফেব্রুয়ারি) বাংলাদেশের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের একটি সূত্র গণমাধ্যমকে জানিয়েছিলেন ইলিয়াসকে ধরিয়ে দেওয়ার জন্য তার বাড়ির দরজা ও শহরের বিভিন্ন স্থানে ‘ধরিয়ে দিন’ পোস্টার লাগিয়ে দেওয়া হয়।

জানা গেছে, অনলাইন অ্যাক্টিভিস্ট মিল্টন জ্যাকব ও প্রিমা রব্বানীর কুইন্স কাউন্টির ক্রিমিনাল আদালতে দায়ের করা মামলায় ১ ফেব্রুয়ারি সাংবাদিক ইলিয়াস পুলিশের কাছে আত্মসমর্পণ করতে গেলে তাকে আটক করা হয়। আটকের ৬ ঘণ্টা পর ছেড়ে দেওয়া হয় তাকে। ১৭ জানুয়ারি সশরীরে আদালতে হাজিরা দেওয়ার কথা থাকলেও তিনি উপস্থিত হননি। ফলে তার বিরুদ্ধে আদালত অবমাননার অভিযোগ আনা হয়।এদিকে চাঞ্চল্যকর মিতু হত্যা মামলায় মিথ্যা ও অসত্য তথ্য সরবরাহ এবং তা প্রচারের অভিযোগে দেশের আদালতেও ইলিয়াসের বিরদ্ধে চার্জ গঠন করা হয়েছে।

পিবিআই প্রধান বনজ কুমার মজুমদারের মামলায় সাংবাদিক তাকে আদালতে হাজির হতে পত্রিকায় বিজ্ঞপ্তির প্রকাশের নির্দেশও দিয়েছিলেন ঢাকার সাইবার ট্রাইব্যুনাল। পরে গত ১৮ জানুয়ারি ট্রাইব্যুনালের বিচারক এ এম জুলফিকার হায়াতের আদালত তার বিরুদ্ধে চার্জ গঠন করে বিচার শুরু করেন।

প্রবাস বাংলা ভয়েস /ঢাকা/ ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ /এমএম