Menu

প্রবাস বাংলা ভয়েস ডেস্ক ::‌ সুস্বাস্থ্য পেতে অনেকেই আজকাল রান্নায় সয়াবিন, সরিষা তেলের পরিবর্তে অলিভ অয়েল ব্যবহার করছেন। সে প্রচলিত দেশীয় রান্না হোক বা ভিন দেশি রান্না কিংবা স্বাস্থ্যকর সালাদ। অন্যদিকে রূপচর্চাতেও অলিভ অয়েলের তুলনা নেই। তবে ব্যবহারের ক্ষেত্রে রয়েছে নানা সতর্কতা। অর্থাৎ জানতে হবে এর সঠিক প্রয়োগ।

এমনিতেই হৃদযন্ত্রকে সুস্থ রাখতে, খারাপ কোলেস্টেরল ঠেকাতে অলিভ অয়েলে ভরসা রাখার পরামর্শ দেন পুষ্টিবিদরা। তবে কেবল অসুখ ঠেকাতেই এই তেল কার্যকর, এমনটা নয়। রুক্ষ ত্বককে মোলায়েম করে তুলতেও এই তেলের জুড়ি মেলা ভার। রূপচর্চায় সারা বছরই কাজে লাগানো যেতে পারে এই তেল। অলিভ অয়েলে অ্যান্টি অক্সিড্যান্ট থাকে, যা ত্বকের ভেতরের স্তরে প্রয়োজনীয় খনিজের জোগান দিতে পারে। চুল থেকে ত্বক—সবকিছুতে কাজে আসবে এই তেল।

গোসলের পর ভেজা ত্বকে অলিভ অয়েল লাগালে ত্বক সহজেই তেল শুষে নেবে এবং পুষ্টি পাবে ঠোঁটের নরম ভাব ধরে রাখতে ও ঠোঁট ফাটা রুখতে এক চা চামচ অলিভ অয়েল, কয়েক ফোঁটা লেবুর রস ও আধ চামচ চিনি মিশিয়ে একটি প্যাক তৈরি করে নিন। এ বার এই প্যাক ঠোঁটে লাগিয়ে চিনি না গলে যাওয়া অবধি মালিশ করুন। দিনে একবার এটি করতে পারলেই উপকার পাবেন অনেকটা।

বর্ষার দিনগুলোতে এই রোদ আবার এই বৃষ্টিতে চুলের ঔজ্জ্বল্য হারিয়ে থাকলে অলিভ অয়েল গরম করে তাতে চায়ের লিকার মিশিয়ে চুলে লাগিয়ে নিলেই কন্ডিশনারের উপকার পাবেন। চুল নরম ও মোলায়েম হবে। ঔজ্জ্বল্যও ফিরে আসবে।এক্সট্রা ভার্জিন অলিভ অয়েল চার-পাঁচ চামচ মিশিয়ে নিন গোসলের পানিতে। ত্বককে নরম তো রাখবেই, সারাদিন ঘামও হবে অনেক কম। ত্বক মোলায়েমও থাকবে।

বর্ষার দিনগুলোতে এই রোদ আবার এই বৃষ্টিতে চুলের ঔজ্জ্বল্য হারিয়ে গেলে ব্যবহার করুন অলিভ অয়েলগোসলের পর ভেজা ত্বকে অলিভ অয়েল লাগালে ত্বক সহজেই তেল শুষে নেবে এবং পুষ্টি পাবে।ভ্রু তোলার পর বা দাড়ি সেভ করার পর ত্বক জ্বালা করলে বা কোনো রকম র‌্যাশ বের হলে অলিভ অয়েলে ভরসা রাখতে পারেন।আঙুলের ডগায় অল্প অলিভ অয়েল নিয়ে চোখের চারপাশে ম্যাসাজ করে ১৫ মিনিট পর ভেজা তুলা দিয়ে মুছে নিবেন। এতে ডার্ক সার্কলের সমস্যা কমবে।রাতে ঘুমানোর আগে ভালোভাবে মুখ ধোয়ার পর সামান্য অলিভ অয়েল মুখে ও গলায় লাগিয়ে নিলে ত্বক কোমল ও মসৃণ হবে।

প্রবাস বাংলা ভয়েস/ঢাকা/ ২৫ জুন  ২০২২ /এমএম