Menu

প্রবাস বাংলা ভয়েস ডেস্ক :: সময়ের সঙ্গে সঙ্গে আমাদের জীবন তার চাহিদা অনুযায়ী পরিবর্তিত হয়। তাই হঠাৎ করে আসা পরিবর্তন আমরা যেমন মানিয়ে নিতে পারি তেমনি তার থেকে ভালো-মন্দ অনেক কিছুই শিখতে পারি। এমনই একটি বড় পরিবর্তন আমাদের জীবনে নিয়ে এসেছে কোডিভ-১৯ কিংবা করোনাভাইরাস।

সারা পৃথিবী যেখানে বন্দি করে রেখেছেন নিজেকে, প্রিয় মানুষদের অদৃশ্য এ মরণ ভাইরাসের হাত থেকে বাঁচাতে। পৃথিবী যেন সব ব্যস্ততা যান্ত্রিকতা থেকে আমাদের ছুটি দিয়েছে। যেই সময় নামক সোনার হরিণ কাজের ব্যস্ততার বাহানায় আমাদের ধরা ছোঁয়ার বাইরে ছিল, এ মহামারি আমাদের শিখিয়েছে কীভাবে প্রিয় মানুষদের কাছাকাছি থেকেও কাজ শেষ করে নেওয়া যায়। কীভাবে গোটা দুনিয়া অনলাইন প্লাটফরমে একত্রিত করা যায়।

সচরাচর যেখানে শিশুদের বইতে হতো ভারী ভারী বইয়ের ভার সেখানে খুব সহজে কীভাবে ঘরে বসেও ভারী ভারী বই না টেনে পড়াশোনা করা যায়, পরীক্ষা দেওয়া যায় আমরা তা শিখেছি এ সময়ে। এ ছাড়া নিজেদের কারণেই আমাদের মাঝে তৈরি হচ্ছিল দূরত্ব। করোনাকালীন সেই মরিচা পড়া সম্পর্কগুলোতে নতুন রঙের ছোঁয়া এসেছে। একই ছাদের নিচে থেকেও অনেক কিছুই যে অজানা ছিল নিজেদের মাঝে তা উপলব্ধিতে এসেছে।

অন্যদিকে করোনাভাইরাসের হাত থেকে বাঁচতে সবার আগে প্রয়োজন পরিচ্ছন্নতা। যা আমাদের মাঝে আগের থেকে বৃদ্ধি পেয়েছে। একটা সময় কোনো অনুষ্ঠান কিংবা বছরের নির্দিষ্ট কিছু সময় ছাড়া ঘর ঝাড়া-মোছা খুব একটা করা হতো না। কিন্তু করোনার কারণে আমাদের মধ্যে পরিষ্কার পরিচ্ছনতার দিকটি আরও বেড়েছে। এর পাশাপাশি নিজেদের ক্ষেত্রেও পরিচ্ছনতায় মনোযোগী হয়েছেন অনেকেই। তাই আমাদের ব্যাগে পানির বোতল, মাস্ক, হ্যান্ড স্যানিটাইজার জায়গা করে নিয়েছে। কোনো কিছু খাবার আগে কিংবা রান্না করার আগে হাত ভালো করে ১০ সেকেন্ড ধরে ধোয়ার অভ্যাস গড়ে উঠেছে।

ধুলাবালির কারণে অনেকেই মাস্ক আগেও পরতেন। করোনাভাইরাসের কারণে এ স্বাস্থ্য সচেতনতা আরও বেড়েছে। যার কারণে যানবাহনে কিংবা পাবলিক প্লেসে যে কোনো স্থানে মাস্ক পরার বিষয়টি লক্ষ্য করা যাচ্ছে। পাশাপাশি হাত মেলানোর আগেও হ্যান্ড স্যানিটাইজার ব্যবহার বেড়েছে সবার মাঝে। ঘরের কাজের ক্ষেত্রে পাল্টেছে চিন্তাভাবনা। অনেকেই অফিসের কাজের পরে বাসায় এসে অন্যদের সাহায্য করছে।

কারণ করোনার এ মহামারি সময়ে যখন হেল্পিং হ্যান্ডদের পাওয়া যাচ্ছিল না তখন নিজেদের কাজ নিজেদেরই করতে হয়েছে। যাতে করে অন্যের ওপর নির্ভরশীলতার বিষয়টি আমাদের থেকে অনেকটা দূর হয়েছে। আর এভাবেই মহামারি এ করোনাভাইরাস কোভিড-১৯ অনেক খারাপ কিছুর মাঝেও আমাদের নতুন করে বাঁচতে শিখিয়েছে জীবনে অনেক নতুনত্বের জন্ম দিয়েছে।

প্রবাস বাংলা ভয়েস/ঢাকা/ ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২১ /এমএম