Menu

প্রবাস বাংলা ভয়েস ডেস্ক ::‌ আজ চলতি বছরের প্রথম সূর্যগ্রহণ। বৃহস্পতিবার বলয়গ্রাস সূর্যগ্রহণের সাক্ষী থাকবে গোটা বিশ্ব। বলয়গ্রাস সূর্যগ্রহণ বলতে বোঝায় সূর্যের ওপর চাঁদের ছায়া পড়াকে। কিন্তু সেটা সূর্যকে সম্পূর্ণরূপে ঢাকতে পারবে না। চারপাশে লাল আলোর রিং বা বলয় দেখা যায়। মার্কিন মহাকাশ গবেষণা সংস্থা নাসা জানিয়েছে, উত্তর গোলার্ধের মানুষ চাক্ষুষ করতে পারবেন বলয়গ্রাস সূর্যগ্রহণ।

নাসা জানিয়েছে, বলয়গ্রাস সূর্যগ্রহণে পৃথিবী থেকে বহু দূরে অবস্থান করবে চাঁদ। সূর্য, পৃথিবী ও চাঁদ এক সরলরেখাতে এলেও পুরোপুরি ঢাকা পড়বে না সূর্য। চাঁদের চারপাশে আগুনের বলয় দেখা যাবে। একে ‘রিং অফ ফায়ার’ বলা হয়।

নাসার মতে, কোথাও কোথাও পূর্ণ গ্রহণ দেখা গেলেও কিছু জায়গায় আংশিক গ্রহণ দেখা যাবে। রাশিয়া, গ্রিনল্যান্ড ও কানাডায় পূর্ণ বলয় দেখা যাবে। আংশিক বলয় দেখা যাবে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের পূর্বাংশে, আলাস্কা ইত্যাদি অঞ্চলে। উত্তর আমেরিকা, ইউরোপ, এশিয়া, উত্তর আফ্রিকা ও ক্যারিবিয়ান দ্বীপপুঞ্জের অধিকাংশ অঞ্চলে আংশিক বলয় দেখা যাবে।

ভারত থেকে সূর্যগ্রহণ দেখা যাবে। ভারতে দুপুর ১টা বেজে ৪২ মিনিটে শুরু হবে গ্রহণ। শেষ হবে সন্ধ্যা ৬টা বেজে ৪১ মিনিটে। বিকেল ৪টা বেজে ১৬ মিনিটে বলয় গ্রাসের দেখা মিলবে। একেবারে ২৫ ডিগ্রি অবস্থানে দেখা যাবে সূর্য ও চাঁদকে।

ভারতে বলয়গ্রাস সূর্যগ্রহণ দেখা যাবে কেবল লাদাখ ও অরুণাচল প্রদেশে। অরুণাচলের দিবাং অভয়ারণ্য অঞ্চল এলাকা থেকে এই সূর্য গ্রহণের সামান্য একটা অংশ দেখতে পাওয়া যাবে বিকেল ৫.৫২ টা নাগাদ। লাদাখে সূর্যগ্রহণ ৬.১৫ টায়। সেখানে সূর্যগ্রহণের শেষ পর্য সন্ধ্যা ৬ টা নাগাদ দেখা যেতে পারে।

তবে সূর্যগ্রহণ অবশ্যই খালি চোখে দেখা উচিত না। সূর্যগ্রহণের সময় খালি চোখে সূর্যের দিকে তাকানো চোখের জন্য মারাত্মক ক্ষতিকর। কখনোই এমনটি করা উচিত নয়। সূর্যগ্রহণ দেখতে হয় টেলিস্কোপ বা সোলার ফিল্টার দিয়ে। nasa. gov/live এ লাইভ দেখা যাবে সূর্যগ্রহণ।

প্রবাস বাংলা ভয়েস/ঢাকা/ ১০  জুন ২০২১ /এমএম