Menu

প্রবাস বাংলা ভয়েস ডেস্ক ::  মহাকাশে উল্কাবৃষ্টি হচ্ছে। পুরো নভেম্বর মাস জুড়ে দেখা যাবে এই মহাজাতিক দৃশ্য। মহাকাশ বিজ্ঞানীরা এই উল্কাবৃষ্টির নাম দিয়েছে লিওনিড উল্কাবৃষ্টি।

বিজ্ঞানীরা জানিয়েছেন, টেম্পল–টাটল ধুমকেতুর লেজের ধ্বংসাবশেষই হল লিওনিড উল্কা। প্রতি ৩৩ বছর আগে টেম্পল–টাটল ধুমকেতুর সূর্যকে প্রদক্ষিণ করতে।

লিওনিড উল্কার ধরন অত্যন্ত উজ্জ্বল। গতি সেকেন্ড প্রতি ৭১ কিলোমিটার, যা তাদের সবচেয়ে দ্রুতগতি উল্কার স্থান দিয়েছে। ফলে প্রতি ঘণ্টায় মানুষরা ১০–১৫টি উল্কা দেখতে পারবেন আকাশে তাকালে।

এই উল্কার মধ্যে আছে ‘‌ফায়ারবল’‌ এবং ‘‌আর্থগেজার’‌ উল্কা। প্রথমটি আকারে অত্যন্ত বড়। এবং দ্বিতীয় ধরনটি সাধারণত দেখা যায় দিগন্তের কাছাকাছি। এগুলির লেজ রঙিন, লম্বা।সিংহ বা লিও ছায়াপথ থেকে উৎপত্তি হয়েছে এই উল্কার। তাই এই উল্কার নাম লিওনিড।

আকাশে যখন চাঁদের আলো খুব মৃদু বা হাল্কা থাকবে, তখনই উল্কাবৃষ্টি সব থেকে ভালোভাবে দেখতে পারবেন মহাকাশপ্রেমীরা। অর্থাৎ রাতের শুরু এবং শেষের দিকে। খালি চোখেই দেখতে পারবেন লিওনিড উল্কাবৃষ্টি। তাই আর দেরি না করে মঙ্গলবার খোলা আকাশের দিকে চোখ রাখুন আর সাক্ষী থাকুন মহাজাগতিক এই ঘটনার।

প্রবাস বাংলা ভয়েস/ঢাকা/ ২০ নভেম্বের ২০২০/এমএম